শিরোনাম :
নবীনগরে সাংবাদিকদের সাথে উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী শাহ আলমের মতবিনিময় নবীনগরে ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা, শিক্ষাবৃত্তি প্রদান ও শেখ হাসিনা একাডেমিক ভবন উদ্বোধন নবীনগরে ২৫টি ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারের মাঝে আশ্রয়ণ প্রকল্পের জমি সহ পাকাঘর প্রদান নবীনগরে পিস্তলসহ এক যুবক গ্রেফতার নবীনগরে মাদকাসক্ত ছেলের ছুরির আঘাতে পিতা হাসপাতালে- অবস্থা শঙ্কামুক্ত না হওয়ায় ঢাকায় প্রেরণ  নবীনগর পৌরসভার মেয়র শিব শংকর দাশ ৩ হাজার তালের চারা গাছ রোপন করেছেন নবীনগরে ২দিন ব্যাপী সাহিত্য মেলার উদ্বোধন নবীনগরে তুচ্ছ ঘটনায় রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ, আহত ৩০ নবীনগরে দেশীয় অস্ত্র সস্ত্র নিয়ে মুক্তিযোদ্ধার বাড়ীতে হামলা ও ভাংচুর আটক (১)। নবীনগর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান  ফুল মিয়ার কুলখানি সম্পন্ন
বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০১:৪২ অপরাহ্ন

আতঙ্কের শহর নরসিংদী গত এক বছরে ৭১টি হত্যাকাণ্ড হয়েছে আইন শৃঙ্খলার ব্যাপক অবনতি ।

প্রতিনিধির নাম / ২০৪ বার
আপডেট : শুক্রবার, ৩০ জুন, ২০২৩

বিশেষ প্রতিনিধি:  আতঙ্কের শহর নরসিংদী গত এক বছরে ৭১টি হত্যাকাণ্ড হয়েছে আইন শৃঙ্খলার ব্যাপক অবনতি ।হত্যার তালিকায় রয়েছে প্রবীণ রাজনীতিবিদ, উপজেলা চেয়ারম্যান, ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী, ছাত্রদলের দুই নেতা ও ব্যবসায়ী। পাশাপাশি ডাকাতি ৮, দস্যুতা ১৪, নারী ও শিশু নির্যাতন ৯৬ ও চুরির দায়ে মামলা হয়েছে ৭৭ টি। তবে কাগজে কলমে এ রেকর্ড থাকলেও প্রকৃত অপরাধের সংখ্যা আর অনেক বেশি বলে জানিয়েছেন ভুক্তভোগীরা।

জেলা আইন শৃঙ্খলা সভায় উপস্থাপিত তথ্যমতে, ২০২২ সালের জুন মাস হতে ২০২৩ সালের মে মাস পর্যন্ত ১১ মাসে জেলায় ৬৭টি খুন হয়েছে। এর মধ্যে শুধু মে মাসেই জেলায় ৭টি খুন হয়েছে। আর চলতি জুন মাসে খুন হয়েছে ৪টি।
এদের মধ্যে শিবপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা হারুনুর রশিদ খানকে গুলি করে হত্যা, রায়পুরা উপজেলার মির্জাচর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাফর ইকবাল মানিককে গুলি করে হত্যা, জেলা ছাত্রদলের সাবেক সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক সাদেকুর রহমান ও আশরাফুল নামে দুই ছাত্র নেতাকে প্রকাশ্যে গুলি করে হত্যা, মনোহরদীতে জাহাঙ্গীর নামে এক বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীকে পিটিয়ে হত্যা, রায়পুরায় পোল্ট্রি ব্যবসায়ী জুলহাস মিয়াকে হ”ত্যার ঘটনায় দেশব্যাপী সমালোচনার সৃষ্টি হয়।
নরসিংদীতে ২০২১ সালের ২৮ জানুয়ারি পুলিশ সুপার হিসেবে যোগদান করেন কাজী আশরাফুল আজীম। জেলায় গত আড়াই বছরে নানা অপরাধ মুলক কর্মকাণ্ড ঘটলেও অধিকাংশ ক্ষেত্রে থানাগুলোতে পুলিশকে মামলা নিতে দেখা যায়নি। গত আড়াই বছরে অপরাধিদের বিরুদ্ধে থানায় গিয়ে অসংখ্য অভিযোগ দিলেও আমলে নেয়নি পুলিশ। অপরাধ করে পাড় পাওয়ার ফলে সম্প্রতি অপরাধের মাত্র আরও বেড়ে গেছে। প্রায় আড়াই বছর পর গত ১৩ জুন তার বদলির আদেশ হলো। তারপরও স্বপদে বহাল আছেন তিনি। এই দীর্ঘ সময়ে প্রায় দুই শতাধিক খুন হওয়ার পরও তার দাবী তার আমলে নিরাপত্তার চাদরে তিনি ঢেকে রেখেছেন এ জেলাকে।
আর যে সব কারণে অপরাধের মাত্রা বেড়েছে বলে অভিজ্ঞমহল মনে করছেন তা হলো সমন্বয়হীনতার অভাব, জনপ্রতিনিধিরা এলাকায় বসবাস না করার কারণ, রাজনৈতিক দলগুলোতে নিজেদের মধ্যে চরম অস্থিরতা ও দলীয় কোন্দল এবং আইনশৃংখলা বাহিনীর জবাবদিহীতার অভাবের ফলে। রাজনৈতিক দলের কতিপয় চিহ্নিত দালাল ও প্রশাসনরে কিছু অসাধু কর্মকর্তা অপরাধিদেরকে অনেকটা ওপেন শেল্টার দিচ্ছে বলেও অভিযোগ উঠেছে। এছাড়া মাদক সিন্ডিকেট,বালু মহল ও জমিজিরাত জবর দখলের ভাগাভাগি নিয়েও প্রতিনিয়ত আইন শৃঙ্খলার চরম অবনতি ঘটছে বলে জানা যায়।
জেলার আইন শৃঙ্খলার চরম অবনতিতে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে সর্বস্তরের মানুষ। এমন পরিস্থিতিতে নরসিংদীকে নিরাপত্তাহীন জেলা বললেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জি এম তালেব। তিনি আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতির বর্তমান অবস্থা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেন, এই জেলা একটি নিরাপত্তাহীন জেলা। আমি উপর মহলেও এ বিষয় নিয়ে আলোচনা করবো। আমাদের সরকারের এত উন্নয়নের পরও আমরা কেন নিরাপত্তাহীন ও বিচারহীন ভাবে থাকবো। একটি জানা যায় নরসিংদী জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জি এম তালেবের উপর হামলা হয়েছে যা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে এবং পত্রিকার সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে। কিন্তু প্রশাসন অপরাধীকে ধরতে পারেননি। জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি এডভোকেট কাজী নাজমুল ইসলাম বলেন, এ বছর গত বছরের চেয়ে হত্যাকাণ্ড কম সংঘটিত হলেও সংখ্যাটা উদ্বেগ জনক। তারপরও এই পরিস্থিতিতে তুষ্ট থাকার কোন সুযোগ নেই উল্লেখ করে তিনি বলেন, এ অবস্থা থেকে পরিত্রাণ পেতে হলে সকলকে একসাথে কাজ করতে হবে। অন্যথায় জেলাবাসীকে আরও কঠিন মুল্য দিতে হবে।( সুত্র দেশ রূপান্তর ) বিএনপি’র মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর প্রেস কনফারেন্সে বলেন নরসিংদী জেলা আতঙ্কের শহর নরসিংদীবাসী নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন । বর্তমানে আওয়ামী লীগবনাম আওয়ামী লীগবিএনপি বনাম বিএনপি দ্বন্দ্ব চলছে এ যেন দেখার কেউ নেই এ অবস্থা চলতে থাকলে আইনশৃঙ্খলার আরো ব্যাপক অবনতি হবে । নরসিংদী সাধারণ জনগণ জানে মালের নিরাপত্তা চাই, এ বিষয়ে নরসিংদীর সচেতন মহল সদয় অবগতি চেয়েছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা, মাননীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও পুলিশের আইজি মহোদয়ের দৃষ্টি আকর্ষণ করছেন ।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ