Home / জাতীয় / হারিয়ে যাচ্ছে দেশীয় পাখ-পাখালী

হারিয়ে যাচ্ছে দেশীয় পাখ-পাখালী

সুজলা- সুফলা, শষ্য- শ্যামলা, প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের লীলাভূমি এদেশ। মাঠ ভরা ধান, জল ভরা দিঘীতে চাঁদের কিরন লেগে ঝিকি-মিকি এখন আর দেখা যায় না। দীঘির চার পাশে দেশীয় বৃক্ষের সমারহ পাখির কিচির-মিচির শব্দ আর শোনা যায় না। বৈচিত্রময় পরিবেশের আজ ছন্দ পতন শুরু হয়েছে, সকালে পাখীর কিচির-মিচির , কুহু, কেকা গানে এখন আর ঘুম ভাঙেনা, বাড়ীর পাশের ঝোপে আর টুনটুনি টুনটুন করে না, লেজ নাচিয়ে ফিঙে ও ডাকে না, বাগিচার কাকগুলো শিশুদের হাত থেকে ছোঁ মেরে খাবার ছিনিয়ে নেয় না, লাঙ্গল কাদে লয়ে ফসলী জমিতে যাওয়ার জন্যে খুব ভোরে গৃহস্থদের মোরগগুলো তাগাদা দেয় না। অভিজাত কৃষাণ কণ্যা তার খাচাঁয় পোষা ময়নাকে খাবার দিতে দেখা যায় না, মাঠ ভরা ধান, জল ভরা দিঘীতে চাঁদের কিরন লেগে ঝিকি-মিকি এখন আর দেখা যায় না। চৈত্রের খরায় চাতকেরা আর মেঘের আশায় থাকতে দেখা যায় না। অগ্রহায়ণেরন ধান ক্ষেতে বুলবুলিরা ধান খেতে আসে না। ঘুঘুরা ও শিকারীদের ফাঁদে পড়ে না। সেচ করা ডোবা খাল-বিল, পুকুরের মাছ কিংবা ছা পোষা মুরগীর বাচ্চা ছোঁ মেরে নিতে আকাশের উপর চিলের চক্কর দিতে দেখা যায় না। বাড়ীর পাশের লাউ-কুমড়ার মাচাতে ফিঙেদের নাচতে দেখা যায় না। বাড়ীতে অতিথি আসার আগমনের পুর্বাবাস দিতে ইষ্টি-কুটুম পাখী ডাকে না, ডাকে না ভুতুম পেচাঁ-কোন বিপদের পুর্বক্ষণে। মুক্ত জলাশয় হ্রাস পাওয়ার কারনে মাছের অভাবে মাছরাঙ্গা, পানকৌরি, গাঙ্গচিল, ডাহুক, বক, সারস, শামুককাচা, পাখীরা ও দিন দিন হারিয়ে যাচ্ছে, ঘরের চৌকোণে চড়ূই পাখীরা ও বাসা বাধে না, বাবুই পাখী ও এখন আর আগের মত চোখে পড়ে না, বাড়ীর ছোট গাছটির এ ডাল থেকে সে ডালে টুন-টুনিকে নাচা-নাচি করতে দেখা যায় না। বসন্ত কাল হলে ও আগের মত কোকিলের ডাক শোনা যায় না, বউ কথা কও পাখীরা ও ডাকে না, দোয়েল, কোয়েল, শ্যামা, ভরত, কাঠ-ঠোকরা, শকুন, শালিক, চোখে পড়ে না, দাড়কাক ও কাক কমে গেছে আগের তুলনায় অনেক, ক্রমাগত হারিয়ে যাচ্ছে এসব দেশীয় পাখ-পাখালী, হ্রাস পাচ্ছে পাখীদের আশ্রয়স্থল বিল, ঝিল, বন-বৃক্ষ, এভাবে হ্রাস পেতে থাকলে হয়ত অচিরেই দেশীয় পাখীগুলো বিলুপ্তির সম্মুখীন হতে পারে। দেখা দিতে পারে প্রকৃতিতে বিরূপ প্রতিক্রিয়া, যখন আক্ষেপ করা ছাড়া আমাদের আর কিছুই করার থাকবে না।তাই প্রাকৃতিক ভারসাম্য রক্ষায় ও সৌন্দর্য্য ধরে রাখতে আমাদের এখনই সতর্কতা অবলম্বন করা উচিত।

Check Also

কুমিল্লায় বিনামূল্যে চিকিৎসাসেবা চালু করেছে সেনাবাহিনী

ডেস্ক রিপোর্ট ● কুমিল্লায় বিভিন্ন স্থানে বিনামূল্যে ভ্রাম্যমান চিকিৎসাসেবা চালু করেছে বাংলাদেশ সেনাবা’হিনী, কুমিল্লা এরিয়া। ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *