Home / জাতীয় / বাংলাদেশ সফর নিয়ে খুশি মোদি, আশাবাদী ও আত্মবিশ্বাসী খালেদা

বাংলাদেশ সফর নিয়ে খুশি মোদি, আশাবাদী ও আত্মবিশ্বাসী খালেদা

১০ জুন (তিতাস নিউজ): আয়তনে ছোট হলেও সার্বভৌম বাংলাদেশের সঙ্গে সুসম্পর্ক রক্ষা করা ভারতের জন্য জরুরি। তবে এই সুসম্পর্ক ভারত কোনও নির্দিষ্ট দলের সঙ্গে করতে চায় না। ভারত এই সম্পর্ককে আওয়ামী লীগ-বিজেপি অথবা আওয়ামী লীগ-কংগ্রেসের সম্পর্ক হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে চায় না।

আজ (বুধবার) আনন্দবাজার পত্রিকায় প্রকাশিত এক প্রবন্ধে এমনটাই মন্তব্য করা  হয়েছে। এতে আরও বলা হয়েছে, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বাংলাদেশ সফর নিয়ে খুশি।

নরেন্দ্র মোদি ঢাকায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে বৈঠকের পাশাপাশি বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়ার সঙ্গেও বৈঠক করার বিষয়টি উল্লেখ করে আনন্দবাজার পত্রিকা মন্তব্য করেছে, “এই সফরই বাংলাদেশ নিয়ে কাজ শেষ নয়, আসলে শুরু।

তবে, আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল আলম হানিফ বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়ার সাথে নরেন্দ্র মোদির একান্ত আলাপচারিতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন।

বুধবার দুপুরে  কুষ্টিয়া পৌর অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত আয়কর বিষয়ক এক  সেমিনারে যোগ দিতে গিয়ে হানিফ সাংবাদিকদের বলেন, মোদির সঙ্গে  আলাপচারিতার বিষয়টি যদি খালেদা জিয়া খোলাসা করে বলেন তাহলে জাতি উপকৃত হবে।

এদিকে, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে দলের চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার সাক্ষাৎকে ‘গুড সাইন’ হিসেবে দেখছেন বিএনপির নেতাকর্মীরা।

তারা দেখছেন,  মোদির সঙ্গে বৈঠকের পর খালেদা জিয়া অনেকটাই উৎফুল্ল, ক্লান্তির ছাপ কেটে গেছে। চলতি বছরে টানা তিন মাস আন্দোলনে ব্যর্থ হয়ে ঘরে ফিরে অনেকটাই মনমরা হয়ে যান খালেদা জিয়া। বৈঠকের পর এখন অনেকটাই আশাবাদী ও আত্মবিশ্বাসী তিনি। ফলে দলের নেতাকর্মীরাও আশাবাদী হয়ে উঠেছেন।

বৈঠকে অংশ নেওয়া বিএনপি’র এক নেতা জানান, বৈঠকে দুই দেশের স্বার্থসংশ্লিষ্ট কথা-বার্তাই বেশী হয়েছে। বিগত ৫ জানুয়ারি নির্বাচনের আগে-পরের সার্বিক পরিস্থিতি সম্পর্কে বিএনপির পক্ষ থেকে মোদিকে বিস্তারিত জানানো হয়েছে।

বিএনপির পক্ষ থেকে ভারতের প্রধানমন্ত্রীর কাছে সবচেয়ে গুরুত্ব দিয়ে যে বিষয়টি তুলে ধরা হয় তা হল— বাংলাদেশে বর্তমানে যে সরকার দেশ শাসন করছে, তা কোনোভাবেই গণতান্ত্রিক নয়। এরা প্রশাসনকে দলীয়ভাবে ব্যবহার করে গণতন্ত্রের সকল রীতি-নীতিকে ভূলুণ্ঠিত করে গায়ের জোরে ক্ষমতায় চেপে বসেছে।

এ সময় ভারতের প্রধানমন্ত্রী মোদি বলেছেন, বাংলাদেশের সার্বিক পরিস্থিতি সম্পর্কে তিনি অবগত। ভারত সব সময় গণতান্ত্রিক শাসনব্যবস্থার পক্ষে।

ঢাকা সফরে এসে নরেন্দ্র মোদি বলেছেন, ‘এই সফরকে বিশ্ব সুক্ষ্মভাবে বিশ্লেষণ করবে, মাপকাঠি দিয়ে দেখবে, এই সফরে বাংলাদেশ কী হারাল আর কী পেল। আমি এই বিষয়ে একবাক্যে বলব, লোকেরা আগে মনে করত যে আমরা বাংলাদেশের খুব আশপাশে রয়েছি। কিন্তু বিশ্বকে আজ স্বীকার করতে হবে, আমরা বাংলাদেশের আশপাশেও আছি এবং সঙ্গেও আছি। আমরা বাংলাদেশকে নিয়ে একসঙ্গে পথ চলব। কেননা, বাংলাদেশের সঙ্গে আমাদের শুধু রাজনৈতিক নয়, আবেগপূর্ণ যোগাযোগ রয়েছে।

Check Also

কুমিল্লায় বিনামূল্যে চিকিৎসাসেবা চালু করেছে সেনাবাহিনী

ডেস্ক রিপোর্ট ● কুমিল্লায় বিভিন্ন স্থানে বিনামূল্যে ভ্রাম্যমান চিকিৎসাসেবা চালু করেছে বাংলাদেশ সেনাবা’হিনী, কুমিল্লা এরিয়া। ...