Home / জাতীয় / বাংলাদেশ -ভারত সড়ক ট্রানজিট চুক্তির খসড়া অনুমোদন মন্ত্রিসভায়

বাংলাদেশ -ভারত সড়ক ট্রানজিট চুক্তির খসড়া অনুমোদন মন্ত্রিসভায়

২ জুন (তিতাস নিউজ): ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ঢাকা সফরকে সামনে রেখে বাংলাদেশ সরকার দুটি  সড়ক ট্রানজিট চুক্তির খসড়া আনুমোদন করেছে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে গতকাল(সোমবার) সচিবালয়ে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভার বৈঠকে কলকাতা-ঢাকা-আগরতলা ও ঢাকা-গৌহাটি রুটে যাত্রাবাহী বাস চলাচলে ভারতের সঙ্গে চুক্তি ও প্রটোকল স্বাক্ষরের প্রস্তাব অনুমোদন করা হয়েছে।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি প্রথমবারের মতো ঢাকা সফরে আসছেন আগামী ৬ জুন। তার এ সফরকালেই এ সংক্রান্ত চুক্তি সই হবে।

গতকাল মন্ত্রিসভার বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোশাররাফ হোসাইন ভূইঞা সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

ঢাকা-কলকাতা-ঢাকা ও ঢাকা-আগরতলা-ঢাকা রুটের জন্য আগে চুক্তি হয়েছে। আগে যে কাঠামো অনুসরণ করা হয়েছিল কলকাতা-ঢাকা-আগরতলা ও ঢাকা-সিলেট-সিলং-গৌহাটি রুটের ক্ষেত্রে সেই কাঠামো অনুসরণ করা হচ্ছে বলে জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব।

বাস চলাচলের ক্ষেত্রে দু’দেশকে কোন ফি দিতে হবে কি না, সে সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘প্রটোকলের মধ্যে এ বিষয়ে কিছু বলা নেই। এতে দু’দেশের মধ্যে কানেকটিভিটি বাড়বে।

তিনি আরো জানান, এ চুক্তিতে দু’দেশ সমান সুযোগ-সুবিধা পাবে। সবই পারস্পরিক সম্মতির ভিত্তিতে প্রণীত ও গৃহীত। এ চুক্তির আওয়ায় দু’দেশে যাতায়াতকারী যানবাহনের রুট পারমিট, রেজিস্ট্রেশন সার্টিফিকেট, ফিটনেস সনদ, ইন্স্যুরেন্স পলিসি লাগবে। বাস পরিচালনাকারী ও বাসের যাত্রীদের পাসপোর্ট ও মাল্টিপল এন্ট্রি ভিসা থাকতে হবে।’

বাংলাদেশের  উপর দিয়ে সড়ক ও নৌ-ট্রনজিট চালুর বিষয়টিকে ভারতীয়দের স্বার্থ রক্ষার চুক্তি বলে মন্তব্য করেছেন বাসদের কেন্দ্রীয় নেতা রাজেকুজ্জামান রতন।

এ প্রসঙ্গে জাতীয় গণমুক্তি কাউন্সিলের সম্পাদক ডা: ফয়জুল হাকিম বলেন ভারত তার নানাবিধ স্বার্থ আদায়ের জন্য এখানে একটি তাবেদার সরকার বসিয়েছে যাদের বিরুদ্ধে জনগণের সংগ্রাম তরান্বিত করতে হবে।

এরইমধ্যে রোববার সকালে কলকাতার সল্টলেক আন্তর্জাতিক বাস টার্মিনাল থেকে ১০ জন ভারতীয় কর্মকর্তাকে নিয়ে পরীক্ষামূলক যাত্রায় ঢাকার পথে ছেড়ে আসে একটি বাস।

গতকাল দুপুরে যশোরের বেনাপোল চেকপোস্ট দিয়ে ‘ভারত-বাংলাদেশ সৌহার্দ্য যাত্রা, কলকাতা-ঢাকা-আগরতলা’লেখা শ্যামলী পরিবহণের বাসটি বাংলাদেশে প্রবেশ করে। এ সময় বাসটিতে যাত্রী হয়ে আসা পশ্চিমবঙ্গ সরকারের পরিবহণ সচিব আলপনা বন্দোপ্যাধ্যায়ের নেতৃত্বে ১১ সদস্যের একটি প্রতিনিধিদলকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান সড়ক পরিবহণ ও সেতু মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব আজাহারুল ইসলাম ও যশোর জেলা প্রশাসক ড. হুমায়ুন কবির। এরপর বাসটি গতকাল রাতে ঢাকায় এসে পৌঁছায়। ভারতের প্রতিনিধি দলটি রাজধানীর সোনারগাঁও হোটেলে রাতযাপন শেষে আজ সকালে আগরতলা উদ্দেশে ঢাকা ছেড়ে যায়।  এরপর বাসটি ৩ জুন আবার আগরতলা থেকে ঢাকা হয়ে কলকাতার উদ্দেশ্যে ছেড়ে যাবে।

এ ব্যাপারে সড়ক ও মহাসড়ক বিভাগের সচিব এমএএন ছিদ্দিক বলেছেন, কলকাতা-ঢাকা-আগরতলা রুটে পরীক্ষামূলক বাস চলাচল শেষে নিয়মিত বাস চলাচল শুরু হবে। সপ্তাহের ছুটির দিন বাদে প্রতিদিনের বাস চলাচল করবে।#

Check Also

কুমিল্লায় বিনামূল্যে চিকিৎসাসেবা চালু করেছে সেনাবাহিনী

ডেস্ক রিপোর্ট ● কুমিল্লায় বিভিন্ন স্থানে বিনামূল্যে ভ্রাম্যমান চিকিৎসাসেবা চালু করেছে বাংলাদেশ সেনাবা’হিনী, কুমিল্লা এরিয়া। ...