Home / সম্পাদকীয় / বার্তা সম্পাদকের কলাম / প্রাথমিক স্তরেই আমাদের আরো যত্নবান হওয়া উচিত।
মোহাম্মদ শাহজামান শুভ সহকারি শিক্ষক বাতাকান্দি উচ্চ বিদ্যালয় তিতাস, কুমিল্লা।

প্রাথমিক স্তরেই আমাদের আরো যত্নবান হওয়া উচিত।

বাংলাদেশের তিন স্তরের শিক্ষা ব্যবস্থার মধ্যে অন্যতম প্রাথমিক শিক্ষাস্তর যাহা পঞ্চম শ্রেণি পর্যন্ত। ১৯৭২ সালের প্রস্তাব করা হয় প্রাথমিক শিক্ষা স্তর হবে অষ্টম শ্রেণি আর এটা ২০১০ সাল থেকে বাস্তবায়নের চেষ্টা চলছে। আমাদের নিজেদের পরিসংখ্যান হিসেব করেও আমরা পীছিয়ে পড়েছি অর্ধ-শতাব্দী আর যদি উন্নত দেশের কথা বলি তাহলে স্বপ্নের মত মনে হবে। আমাদের দেশে ৩১টি নৃ-গোষ্টি আছে, আছে বিভিন্ন দেশের লোকজন। জীবন যাত্রার মান অনুযায়ী আছে উচ্চ বৃত্ত, মধ্য বৃত্ত, নিম্ন বৃত্ত। প্রাথমিক শিক্ষায় আছে নানা রকম কে.জি.স্কুল, এবতেদায়ী মাদ্রাসা,কওমী মাদ্রাসা, আনন্দ স্কুল, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, কমুউনিটি বিদ্যালয় সহ ১১ রকমের প্রাথমিক শিক্ষা। প্রাথমিক শিক্ষা একীভূত শিক্ষা হলেও বাস্তবে এটা মিল পাওয়া যাচ্ছে না।

শিশুদের বয়স, সামর্থ, মানসিক পরিপক্কতা, সমাজের চাহিদা, বিদ্যালয়ের ভৌত সুবিধাদি, শিক্ষকের প্রস্তুতি ইত্যাদির উপর বিচার বিশ্লেষণ ও পর্যালোচনার মাধ্যমে প্রাথমিক শিক্ষার ৫০টি প্রান্তিক যোগ্যতা নির্ধারণ করা হয়েছে। এই প্রাথমিক শিক্ষার ৫০টি প্রান্তিক যোগ্যতা আমরা পি.এস.সি. বা এবতেদায়ী পরিক্ষার মাধ্যমে পরিমাপ করি। আমরা কি আসলেই প্রাথমিক শিক্ষার ৫০টি প্রান্তিক যোগ্যতা শিশুদের অর্জন করাতে পারি?
আমাদের দেশের উচ্চ স্তরের শিক্ষকগণ বলেন, মাধ্যমিক স্তরের মান ভাল না আবার মাধ্যমিক স্তরের শিক্ষকগণ বলেন প্রাথমিকের মান ভাল না।প্রাথমিক শিক্ষকদের আছে অনুরুপ অনেক অভিযোগ বা চাহিদা। আমরা কী প্রাথমিক শিক্ষা স্তরে ৫০টি প্রান্তিক যোগ্যতা সমাপ্ত করেছি। আমার বিশ্বাস যদি ৫০টি প্রান্তিক যোগ্যতা শিশুদের অর্জন করাই তাহলে তারা পরবর্তীতে অবশ্যই ভাল করবে। প্রাথমিক স্তরেই একটি শিশু জীবন যাত্রার মান অনুযায়ী শিক্ষা পায় ভিন্ন। এখন শিক্ষকের মান নিয়েও প্রশ্ন করার মত অবস্থা।শিক্ষার মানের চেয়ে বড় প্রশ্ন শিক্ষকের জীবনযাত্রার মান। প্রাথমিক শিক্ষকের বেতন বা সম্মানি অতি সামান্য। কে.জি. স্কুল,প্রাথমিক বিদ্যালয়, এবতেদায়ী মাদ্রাসা,কওমী মাদ্রাসা প্রভৃতিতে কিছু সংখ্যক জায়গায় শিক্ষকের এমন অবস্থা যেন “সর্দার পড়ো” ব্যবস্থায় পড়াচ্ছে। শিক্ষকতার পেশাধারীত্ত্বের কোন প্রশিক্ষণ নাই।
এখন সময় এসেছে আমাদের প্রাথমিক শিক্ষা নিয়ে আরো বেশী করে ভাবার। শিক্ষা জাতির মেরুদন্ড। এই শিক্ষা কী প্রাথমিক না উচ্চ মাধ্যমিক তা বির্তক না করে মূল শিক্ষায় (প্রাথমিক শিক্ষা) আমাদের আরো নজর দেয়া উচিত। শিশুদের মৌলিক অধিকার, প্রাথমিক শিক্ষকদের বেতন বা সম্মানী, প্রশিক্ষণ, পেশাধারীত্ত্ব ইত্যাদির ব্যাপারে লক্ষ্য করে প্রাথমিক শিক্ষা ব্যবস্থা আরো উন্নত করা উচিত।

Check Also

পৃথিবীর সাত সেরা “ভারতি গ্লোবাল ফাইন্ডেশন” এর Award প্রাপ্তদের মধ্যে বাংলাদেশের মোহাম্মদ শাহজামান শুভ একজন

নিজস্ব প্রতিনিধি: জীবনে সফল হতে হলে কিছু জিনিস সবার থেকে একটু আলাদা ভাবে ভাবতে প্রয়োজন ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *