শিরোনাম :
নবীনগরে রাতের আঁধারে ভেকু দিয়ে ফসলি জমি কাটার সময় ইউএনও’র বিশেষ অভিযানে আটক ৩  আর কখনো পাঠকের হাতে পত্রিকা তুলে দিবেন না লোকমান হেকিম চৌধুর নবীনগরে সাংবাদিকদের সাথে উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী শাহ আলমের মতবিনিময় নবীনগরে ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা, শিক্ষাবৃত্তি প্রদান ও শেখ হাসিনা একাডেমিক ভবন উদ্বোধন নবীনগরে ২৫টি ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারের মাঝে আশ্রয়ণ প্রকল্পের জমি সহ পাকাঘর প্রদান নবীনগরে পিস্তলসহ এক যুবক গ্রেফতার নবীনগরে মাদকাসক্ত ছেলের ছুরির আঘাতে পিতা হাসপাতালে- অবস্থা শঙ্কামুক্ত না হওয়ায় ঢাকায় প্রেরণ  নবীনগর পৌরসভার মেয়র শিব শংকর দাশ ৩ হাজার তালের চারা গাছ রোপন করেছেন নবীনগরে ২দিন ব্যাপী সাহিত্য মেলার উদ্বোধন নবীনগরে তুচ্ছ ঘটনায় রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ, আহত ৩০
শনিবার, ০২ মার্চ ২০২৪, ১২:১৪ অপরাহ্ন

পবিত্র ঈদকে সামনে রেখে কোরবানির গরুর পরিচর্যায় ব্যস্ত নবীনগর নাটঘরের খামারি জহির মিয়া

প্রতিনিধির নাম / ১৯১ বার
আপডেট : বৃহস্পতিবার, ৮ জুন, ২০২৩

নবীনগর (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধি:

আসন্ন পবিত্র কোরবানির ঈদকে সামনে রেখে নবীনগরের নাটঘরে গড়ে উঠেছে গরুর খামার । খামারে দেশ-বিদেশের বিভিন্ন প্রজাতির শাহী ওয়াল জাতের সবল দেহি মোটাতাজা গরু লালন পালন করা হচ্ছে ।
পবিত্র কোরবানির ঈদে বেশি দামে বিক্রি করে লাভবান হতে পশুর বেশি বেশি পরিচর্যা করছেন খামারি জহির মিয়া ।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া নবীনগর উপজলার নাটঘর উত্তরপাড়া বাণিজ্যিকভাবে কোরবানির গরু
মোটাতাজা করে বিক্রয় যোগ্য করে তুলেছেন দেশীয় শাহী ওয়াল জাতের ৫ টি গরুর খামারী জহির মিয়া ।

বর্তমানে তার খামারে ৫ টি কোরবানির গরুর রয়েছে। গরুগুলা দেখাশোনার জন্য তিনি শ্রমিক রেখেছেন। শ্রমিকের কেউ কেউ খড় খেতে দিচ্ছেন, কেউ ভূষি ও ধানের তুষ দিচ্ছেন। বর্তমানে প্রচন্ড তাপ যেন গরুর কষ্ট না হয় শ্রমিকরা গরুগুলোকে দিনে দুইবার গোসল করিয়ে দিচ্ছেন ।
এভাবেই তিনি সহ শ্রমিকরা পরিচর্যায় ব্যস্ত সময় পার করছেন দেশীয় পদ্ধতিতে গরু মোটাতাজাকরণ করণে,
আর দিন গুনছে আসন্ন পবিত্র কোরবানির ঈদে সফলতার মুখ দেখার ।

তিনিবলেন অবৈধ পথে ভারত থেকে গরু আমদানি না হলে আমরা লাভবান হওয়ার আশাবাদী ।

সাক্ষাৎকারে জহির মিয়া বলেন, গরু মোটাতাজা করণের বেপারে আমি অনেক সজাগ থেকেছি। কোরবানির পশু হালাল রাখতে আমার নিজস্ব জমিতে লাগানো ঘাষ, বিচালি, খৈল ও ভুসি ভুট্রা খাওয়াচ্ছি ,গরুগুলোকে দেশীয় পদ্ধতিতেই বড় করছি। কোনো রাসায়নিক পদ্ধতি ব্যবহার করছি না।

জহির মিয়া বলেন ৪ জন দক্ষ শ্রমিক দিয়ে গুছিয়ে নিচ্ছে খামারের সকল কাজ। খামারে
সাচ্ছন্দ্য পরিবেশ থেকে বেড়ে উঠা পশু গুলো নিয়ে ক্রেতাদের পুষ্টিয় ও বেজাল বিহীন কোরবানির পশু দেওয়ার শতভাগ নিশ্চয়তা দিচ্ছেন তিনি। দামের দিকেও বাজার মুল্য অনুসারে স্বল্প লাভে গরু বিক্রি করার চিন্তা করছেন জহির মিয়া, তার খামারে ৫ লাখ থেকে ৮ লাখ টাকার মধ্যে বিক্র‍য় উপযোগী গরু রয়েছে।
তার খামারে ছুট থেকে বড় গরুর ওজন ধারনা করা হচ্ছে ২০/২৫ মণ ওজনের হবে।

বিক্রি যোগ্য গরু গুলোতে শারিরীক সুস্থতা ও রাগ মেজাজ দেখে প্রকাশ পায় একদম নির্ভেজাল পশু।
তাই কোরবানির পশু ক্রয় করতে চাইলে এই নাম্বারে যোগাযোগ করুন 01643503845


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ