Home / তিতাসের খবর / তিতাসে আ.লীগ কর্মীকে হত্যার ঘটনায় আটক ১

তিতাসে আ.লীগ কর্মীকে হত্যার ঘটনায় আটক ১

কবির হোসেন, তিতাস:

কুমিল্লার তিতাস উপজেলায় আধিপত্য বিস্তারের জেরধরে আওয়ামীলীগ কর্মীকে কুপিয়ে হত্যা করেছে প্রতিপক্ষ। বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৮টায় উপজেলার হারাইকান্দি গ্রামের আজিজ সরকারের বাড়ীর পূর্ব পাশের ধান ক্ষেতে এঘটনা ঘটে। নিহতের নাম মোঃ শাহআলম(৪৫)সে উজেলার হারাইকান্দি গ্রামের মৃত বাচ্চু মিয়ার ছেলে। পুলিশ লাশ উদ্ধারকরে গতকাল শুক্রবার সকালে ময়না তদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছে। এঘটনায় জরিত খোকন ডাকাত নামে ১জনকে আটক করেছে পুলিশ। সরজমিনে গিয়ে জানা যায়, কলাকান্দি ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের সভাপতি মোঃ হাবিবুল্লা বাহার গ্রুপ ও যুবলীগ নেতা ইব্রাহিম গ্রুপের মধ্যে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দীর্ঘদিন ধরে হত্যা, বন্দুক যুদ্ধ,টেঠা যুদ্ধ, লুটপাট, ভাংচুর,স্থানীয় বাজার দখল ও অগ্নি সংযোগের ঘটনায় হত্যা মামলাসহ একাদিক মামলা নিয়ে বিরোধ চলে আসছে। তারই জেরধরে গতকাল বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৮টায় বাহার গ্রুপের মাওয়ামীলীগ কর্মী মোঃ শাহআলম কলাকান্দি বাজার থেকে বাড়ী যাওয়ার পথে হারাইকান্দি গ্রামের আজিজ সরকারের বাড়ীর সামনে পৌছলে ইব্রাহিম গ্রুপের প্রধান ইব্রাহিম, লিটন,জুয়ারী শফিক,আরিফ,রুবেল,খোকন ডাকাত, মিজান,শরিফ, আলাউদ্দিন, হারুন, হুমায়ন , অহিদ, আনোয়ারসহ আরো অজ্ঞাত ২০/২৫ জন ভাড়াটে কিলার পরিকল্পিত ভাবে আলমকে এলোপাতারী কুপাতে থাকে একপর্যায় আলম জীবন বাচাতে দৌড়ে পলানোর আপ্রান চেষ্টাকরেও মৃত্যুর আলিঙ্গন থেকে বাঁচতে পারেনি। স্থানীয় লোকজন তার আর্তচিৎকারে এগিয়ে আসলেও অনেকে ভয়ে তাকে হামলাকারীদের হাত থেকে রক্ষা করতে পারেনি। তারা আরো জানায়, আজিজ সরকারের বাড়ীর পূর্ব পাশে ধান ক্ষেতে গিয়ে দেখি আলমের ক্ষত-ভীক্ষত রক্ত মাখা নিথর দেহ পরে আছে। স্বজনরা এসে তাকে উদ্ধার করে দাউদকান্দির গৌরীপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্রা নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার মৃত ঘোষনা করে। হারাইকান্দি গ্রামবাসী সমকালকে জানায় গত বছরের নভেম্বর মাসে বাহার ও ইব্রাহিম গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ চলাকলে ইব্রাহিম গ্রুপের সমর্থক কলাকান্দি গ্রামের ভাংগারী ব্যাবসায়ী মোঃ সেন্টু (৪৫) টেটা বৃদ্ধ হয়ে মরা যায় ,তারই জেরধরে এহত্যা কান্ড সংঘটিত হয়েছে। এবিষয়ে বাহারের নিকট জানতে চাইলে সে সমকালকে জানায়, ইব্রাহিম ও তার সমর্থকরা এলাকায় দীর্ঘদিন ধরে চাঁদা বাজী, জমি দখল, মাদক ব্যাবসা, জুয়া ও নারী পাচারসহ বিভিন্ন অপরাধ মুলক কর্মকান্ড চালিয়ে আসছে এসবের প্রতিবাদ করায় ইব্রাহিম ক্ষিপ্ত হয়ে কিছু দিন পর পর এলাকার খেটে খাওয়া মানুষের উপর হামলা করে। বৃহস্পতিবার রাতে ও আমার কর্মীর উপর হামলা করে তাকে হত্যা করে। এবিষয়ে ইব্রহিমের সাথে ০১৭১৫৩৩০৪৪১ নম্বরে যোগাযোগ করলে অপর প্রান্ত থেকে ইব্রাহিমের স্ত্রী পরিচয় দিয়ে বলে সকালে ঢাকা চলে গেছে। দুপুর ২টায় আবার ফোন করলে ইব্রাহিম সমকালকে জানায় শাহআলম ও আলাউদ্দিন ছাগল নিয়ে রাতে ঝগরা করেছে শুনেছি, কে বা ক্রা এই হত্যা কান্ড ঘটিয়েছে তা আমার জানা নেই। তবে হত্যা কান্ডে জরিত প্রকৃত অপরাধীরা জেন শাস্তি পায়। এদিকে কলাকান্দি ইউনিয়ন বাসী সমকালকে জানায় ২০০৯ সালে ইউপি নির্বাচনে বাহার ও ইব্রাহিম প্রতিদন্ধি প্রার্থী ছিল। বি এন পি’র প্রার্থী জবেদ আলীর সাথে সামান্ন ভোটে পরাজিত হয় ইব্রাহিম। আর এই পরাজয়ের কারন হিসেবে বাহারকে দায়ী করে আসছে ইব্রাহিম। পরাজয়ের জের ধরেই দীর্ঘদিন ধরে বাহার ও ইব্রাহিম গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ চলে আসছে। অপরদিকে উপজেলা আওয়ামী লীগের তৃনমূল পর্যায়ের নেতা কর্মীরা সমকালকে জানায় ্উপজেলা আওয়ামী লীগের মেরুদন্ডহীন কমিটি ও দলীয় কোন্দলের কারনে আজ তিতাস উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা মিথ্যা মামলা ও হত্যার শিকার হচ্ছে। তিতাস থানা ওসি মোঃ মনিরুল ইসলাম পিপিএম সমকালকে জানায় হত্যা কান্ডে জরিতদের গ্রেফতারের চেষ্ঠা অব্যাহত আছে। ইতি মধ্যে একজনকে আটক করেছি। এলাকায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। বর্তমানে পরিাস্থতি শান্ত। বিকাল সাড়ে ৫টায় নিহতের জানাযা শেষে হারাইকান্দি পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হবে।

Check Also

আজ তিতাস উপজেলায় ৪৮ তম জাতীয় স্কুল ও মাদ্রাসার গ্রীষ্মকালীন খেলাধূলার ফাইনাল প্রতিযোগীতা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন – হোমনা-তিতাসের গণ মানুষের নেতা ও মাননীয় জাতীয় সংসদ ...