Home / রাজনীতি / খালেদার বিরুদ্ধে মামলা, শোক প্রকাশে প্রধানমন্ত্রীর আন্তরিকতা নিয়ে প্রশ্ন

খালেদার বিরুদ্ধে মামলা, শোক প্রকাশে প্রধানমন্ত্রীর আন্তরিকতা নিয়ে প্রশ্ন

২৫ জানুয়ারি (তিতাস নিউজ): রাজধানীর যাত্রাবাড়ীতে বাসে পেট্রোল বোমা হামলার ঘটনায় পুত্রশোকে কাতর বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে ‘হুকুমের আসামি’ করে একটি  মামলা দায়ের করা হয়েছে।

যাত্রাবাড়ী থানার পুলিশের উপ-পরিদর্শক কে এম নুরুজ্জামান বাদী হয়ে শনিবার বিকেলে ১৯৭৪ সালের বিশেষ ক্ষমতা আইনের ১৫/২৫(ঘ) ধারায় মামলাটি দায়ের করেন। শনিবার বিকেলে এ মামলা দায়ের করা হলেও আজ রোববার বিষয়টি প্রকাশ পায়।

শনিবার বিকেলে মামলাটি দায়েরের কয়েকঘণ্টা পর বেগম জিয়াকে সান্ত্বনা দেয়ার জন্য তার অফিসের গেটে গিয়ে প্রধানমন্ত্রীর ফিরে আসার ঘটনাকে ‘রাজনৈতিক সংস্কৃতির খারাপ উদাহরণ’ বলে মনে করেন বিশিষ্টজনেরা।

এ প্রসঙ্গে সাবেক প্রতিমন্ত্রী ‌আলমগীর কবির রেডিও তেহরানকে বলেন, প্রধানমন্ত্রীর পুলিশ খালেদা জিয়ার কার্যালয়ের গেটে তালা ঝুলিয়ে রেখেছে এবং কয়েকদিন ধরে প্রধানমন্ত্রী ও তার মন্ত্রীরা পার্লামেন্টে বা বাইরে যেভাবে লাগাগালি করেছেন তাতে খালেদা জিয়াকে তাদের শোক প্রকাশের আন্তরিকতা নিয়েই জনগণ প্রশ্ন তুলতে পারেন।

এ প্রসঙ্গে বাংলাদেশ বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক বলেন, দুটি বড় রাজনৈতিক দলই প্রতিহিংসার দ্বারা পরিচলিত হচ্ছে। ফলে স্বাভাবিক রাজনৈতিক শিষ্টাচারও তারা আর অনুসরণ করেন না। এর ফলে রাজনীতি আরো হিংসাশ্রয়ী হয়ে পড়েছে।

এদিকে,  যাত্রাবাড়ী থানায় দায়েরকৃত এ মামলায় খালেদা জিয়াকে হুকুমের আসামি করা ছাড়াও পেট্রোল বোমা ছোঁড়ার পরিকল্পনাকারী হিসেবে বিএনপির ১৮ নেতার নাম উল্লেখ করা হয়েছে।

মামলার এজাহারভুক্ত ৫০ জন আসামির মধ্যে বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিয়া, এম কে আনোয়ার, অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন, শিমুল বিশ্বাস, শিরিন সুলতানা, সেলিমা রহমান, রিজভী আহমেদ, বরকত উল্লা বুলু, আমান উল্লাহ আমান, হাবিবুন নবী খান সোহেল, আজিজুল বারী হেলাল, বিএনপির প্রেস উইংয়ের সদস্য সাইরুল, দিদার, সালাউদ্দীন আহমেদ, আবদুল কাইয়ূম কমিশনারের নাম রয়েছে।

এছাড়া, বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা শওকত মাহমুদ, প্রেস সচিব মারুফ কামাল খান সোহেলসহ দলের জ্যেষ্ঠ ১৮ নেতাকে ঘটনার পরিকল্পনাকারী হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, গত শুক্রবার রাতে যাত্রাবাড়ীর কাঠেরপুল এলাকায় একটি যাত্রীবাহী বাসে পেট্রলবোমা ছোড়া হলে ২৮ জন দগ্ধ হন। দগ্ধদের মধ্যে অন্তত সাতজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। তারা ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন।

Check Also

সংঘর্ষে যারা জড়িত ওরা আমাদের কেউ না

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি———————————————- মুরাদনগর ও কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামীলীগ——————————————————————————————————————– ‘সংঘর্ষে যারা জড়িত ওরা আমাদের কেউ না’ ...